মঙ্গলবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪, ১ আশ্বিন, ১৪২১ সাইনইন | রেজিস্টার |bangla font problem


একটি সত্য ঘটনা !!!


ফ্রান্সে একজন মহিলা, যিনি কিনা ইসলামী পোশাকের বিধান মেনে নিকাব পরেছিলেন, একটা সুপারমার্কেটে গেলেন। তিনি কিছু জিনিস নিয়ে কাউন্টারে সেগুলো চেক করিয়ে মূল্য পরিশোধের জন্য গেলেন। কাউন্টারে ক্যাশিয়ার হিসেবে একজন মুসলিম মহিলা বসা ছিলেন। যা হোক, ক্যাশিয়ার মহিলাটি কিন্তু খুব স্বাভাবিক পোশাক পরেছিলেন আর তার চুলও ছিল খোলা। স্বাভাবিকভাবেই ক্যাশিয়ার মহিলাটি নিকাব পরা মহিলাটিকে দেখে একটু বিব্রতবোধ করলেন, আর তার নিয়ে আসা জিনিসগুলো তাচ্ছিল্যভরে চেক করতে লাগলেন।
কয়েক মিনিট পর, ক্যাশিয়ার মহিলাটি নিকাব পরা মহিলার দিকে তাকিয়ে জিজ্ঞেস করলোঃ কেন আপনি এখানে আসলেন? আপনি যদি নিকাব পরতেই চান, তো নিজের দেশে গিয়ে নিজের ঘরে বসেই তো ধর্ম কর্ম করতে পারতেন। আমরা তো ফ্রান্সে এসেছি আমাদের নিজেদের উন্নতির জন্য।
নিকাব পরা ভদ্র মহিলাটি খুব শান্তভাবে তার নিকাবটি খুলে ক্যাশিয়ার মহিলার সামনে তার চেহারা উন্মুক্ত করলেন। ক্যাশিয়ার মহিলাটি তখন হতভম্ব হয়ে গেলেন ! তিনি দেখলেন বাদামী চামড়া ও রঙ্গীন চোখ বিশিষ্ট এক মহিলাকে। জী হ্যাঁ তিনি ফ্রান্সেরই অধিবাসীনী।
নিকাব পরা মহিলাটি তখন ক্যাশিয়ার মহিলাটিকে বললেনঃ তোমরা এখানে এসছো নিজদের ধর্ম বিক্রি করতে , আর আমরা তা ক্রয় করে নিয়েছি!

সুবহান আল্লাহ !
১২ টি মন্তব্য
farida143 ফৈরা দার্শনিক২৬ জানুয়ারি ২০১৩, ১৬:৪৫
এই ছোট্ট ঘটনা আমাকে ভাবিয়ে তুলল।
অনেক অনেক ধন্যবাদ ভাইজান।
খুব ভালো লাগল এই পোষ্ট।
শুভেচ্ছা
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১১:৫৭
ধন্যবাদ।
newone মা - রে - মা তর ছেলে আর মানুষ হল না২৬ জানুয়ারি ২০১৩, ১৭:০১
ছবি দেখে ভয় পেয়েছি ..............।
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১১:৫৯
তাই?
ভয় পাওয়ার কিছু নাই।
kamaluddin কামাল উদ্দিন২৬ জানুয়ারি ২০১৩, ১৭:০৭
হুম, মানুষের চিন্তা চেতনার ভিন্নতা থাকাটাই স্বাভাবিক ।
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১১:৫৯
ধন্যবাদ
ak2441139 একে বিশ্বাস২৬ জানুয়ারি ২০১৩, ১৭:০৯
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১২:০০
KASHEMTIPU ভালোলাগে২৬ জানুয়ারি ২০১৩, ১৯:২৩
খুব ভাল লাগল পড়ে।ধন্যবাদ।
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১১:৫৭
Jalampwd আলম পিডাব্লিউডি২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১০:০৫
মনটা ভরে গেল।
sufialam মু. সুফী আলম২৭ জানুয়ারি ২০১৩, ১১:৫৭
ধন্যবাদ।