রবিবার ২০ এপ্রিল ২০১৪, ৭ বৈশাখ, ১৪২১ সাইনইন | রেজিস্টার |bangla font problem


‘‘বাবলা গাছের ভ্যাবলা কাঁটা'' (প্রথম পর্ব)’’

সবখানেই কিছু লোক পাওয়া যায়, যারা সোজা কথার উল্টা জবাব দেয়। যেমন কেউ হয়ত বই পড়ছে, জিজ্ঞেস করলাম, ‘কি মিয়া ভাই, কি করেন?’ সে মিজাজ খারাপ করে বলল, ‘ভাই ফুটবল খেলি! অতি মজার খেলা! খেলবেন?’ এসব কথার কোন উত্তর হয়না। ঠিক এরকমই একজন আমাদের পাড়ার জালাল ভাই। ভদ্রলোক সবসময় ঘোরের মধ্যে থাকতে পছন্দ করেন! তার মাথায় দুনিয়ার যত উদ্ভট প্রশ্ন আছে তাই কিলবিল করে। প্রশ্ন করাও যে একটা প্রতিভা তা জালাল ভাইকে না দেখলে বিশ্বাস হবে না! তিনি আমাকে দেখলেই তার প্রশ্নের বস্তা খুলে আমার ঘাড়ে একটা একটা করে ফেলতে থাকে। বিরাট যন্ত্রনার ব্যাপার! সঠিক উত্তর না দিতে পারলেও আবার আরেক জ্বালা! শুনো এবার লেকচার! তাই, তাকে দেখা মাত্র আমার ভিতরে একটা লাল লাইট জ্বলে উঠে। যার অর্থ সামনে ‘বিপদ’! কিন্তু এ এমন এক বিপদ যাকে এড়ানো যায় না। যেমন, কিছু মিজাইল আছে যেগুলো হিট সেনসরের মাধ্যমে লক্ষ বস্তুকে খুঁজে বেড়ায় তন্নতন্ন করে। সামনের কোন বাঁধাই তাকে আটকাতে পারে না। সে এঁকেবেঁকে গিয়ে ঠিক লক্ষ বস্তুকে আঘাত করে তাকে ধ্বংশ করে। জালাল ভাইও আমার জন্য সেই রকম হিট সেনসর অলা একটা মানব মিজাইল। আমাকে ঠিকই খুঁজে বের করে ফেলেন, প্রশ্ন দিয়ে ঘায়েল করার জন্য। তাই আজকাল তাকে দেখে আর পালাই না। মনে মনে প্রস্তুত থাকি ভয়াবহ প্রশ্নবানে জর্জরিত হওয়ার জন্য!

একদিন সন্ধ্যায় জালাল ভাইয়ের সাথে দেখা হল গলির মুখে (বুঝতেই পারছেন কি রকম দেখা!!!)। সে খুব গম্ভির ভাবে আমাকে বলল, ‘ডলার, বলতো চাঁদের ওজন কত?’' প্রশ্ন শুনেই আমি মহা টেনশনে পরে গেলাম! চাঁদেরও যে আমাদের মত ওজন আছে তাই জানতাম না! আমার জানামতে ননগ্র্যাভিটি পজিশনে ওজন থাকা না থাকা সমান। আমি নিমতিতা হাসি হেসে বললাম, ‘জালাল ভাই, এই প্রশ্নের উত্তর জানি না!’ তাকে পাম মারার জন্য আবার বললাম, ‘এমন প্রশ্নের উত্তর খুব বুদ্ধিমান যারা তারাই শুধু জানবে। আমি বোকা মানুষ, এগুলা অনেক দূরের ব্যাপার আমার কাছে।’ আমার ধারনা জালাল ভাই নিশ্চয়ই এই প্রশ্নে উত্তর জানেন। নইলে প্রশ্নটা কেন করলেন? তিনি আমার দিকে বিরক্তি নিয়ে তাকিয়ে বললেন, ‘তুমি না মিয়া গল্প-টল্প লেখ? এত কম জেনে কিভাবে গল্প লেখো? আমি তোমার সব লেখা পড়েছি। অত্যন্ত ফালতু টাইপের লেখা! জ্ঞানের কোন রকম ছোয়া নাই! মনগড়া কিছু হাবিজাবি কাহিনী লিখলেই কি লেখক হওয়া যায়? লেখক হবে মহা জ্ঞানী, সে সব কিছুর উত্তর দিতে পারবে। যে উত্তর বিশ্বকোষে নাই, সেটাও সে দিবে তার মত করে! তবেই না লেখক! নাক টিপলে দুধ বের হয়, সে লিখে গল্প! অত্যন্ত হাসির কথা! তুমি আর গল্প-টল্প লিখবা না! আর খুঁইজা বার করবা চাঁদের ওজন কত। কারণ উত্তরটা আমিও জানি না!!’ কথাটা বলেই তিনি আর দাড়ালেন না। চলে গেলেন। আমি বোকার মত একা একা দাড়িয়ে থাকলাম। ভাবতে লাগলাম, ‘সত্যিই তো, চাঁদের ওজন কত?’

যাইহোক, বিস্তর খেটেখুটে উত্তরটা বের করলাম। জালাল ভাইয়ের সাথে দেখা হল। এবার আমিই তাকে খুঁজে বের করলাম। বললাম, ‘জালাল ভাই, চাঁদের ওজন কত এখন জানি, বলব?’ তিনি অন্য মনস্ক হয়ে বললেন, ‘'চাঁদের ওজন দিয়া আমি করব? খালি ফালতু প্যাঁচাল। লেখকরা যে বাজে প্যাঁচালে ওস্তাদ তা জানতাম না, তোমাকে দেখে জানলাম! কাজের কথা বলি শুনো।’ আমার মন খারাপ হয়ে গেল। সব কষ্ট বৃথা। তার কাজের কথাও যে বিরাট অকাজের কথা তা না শুনেই বুঝতে পারলাম! তবু বললাম, ‘জ্বি, শুনছি বলেন।’ তিনি শুরু করলেন, ‘শুনো, বছর তিন চার আগে একটা হলিউডের মুভি দেখেছিলাম। গল্পটা ছিল ভুতের। আমি দেখে অত্যন্ত ভয় পেয়েছিলাম! কাহিনী তোমাকে বললে একটা গল্প লেখতে পারবা না? খুব ভয়ানক কাহিনী!’ তিনি এমন ভাবে কথাগুলো বলছেন যেন এখনও ভয় পাচ্ছেন। আমি বললাম, ‘জালাল ভাই, আমি কি পারব? আমার লেখা তো আপনার পছন্দ হয় না।’ তিনি বিরক্ত হয়ে বললেন, ‘খালি বেশি কথা। তুমি দুপুর বেলা আমার অফিসে আসবা। একসাথে দুজন লাঞ্চ করব আর তোমাকে গল্পটা তখন শুনাবো। তুমি সুন্দর করে লিখবা। গল্পের নাম কিন্তু আমি দিবো! তুমি আবার ঝামেলা করবা না তো?’ আমি চুপচাপ, কিছু বললাম না। মনে মনে সিদ্ধান্ত নিলাম, যাবো না! কারণ, দেখা যাবে আমি গেলাম, তিনি আমাকে দেখে বিরক্ত হয়ে বললেন, ‘কি চাও? এখন কাজের টাইম, জানো না? খালি ঝামেলা করো কাজের টাইমে আইসা! যাও এখন! লেখক হওয়ার পর হইছো বদের হাড্ডি, আগেই ভাল ছিলা, সময়-গময় নাই, খালি অসময়ে বিরক্ত করা!’

জালাল ভাই বাংলাদেশের স্বনামধন্য একটা ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের পদে চাকুরীরত। তিনি তার কথা রেখেছিলেন। দুপুরে হাজী সাহেবের বিরিয়ানী খাইয়ে গল্পটা বলেছিলেন! শুনে আমি খুব আনন্দ পেয়েছিলাম। ভুতের গল্পটা খুবই চমৎকার। গল্পটা লিখে জালাল ভাইকে দেখালাম। তিনি হেসে বললেন, ‘গাধারে, আমি কি গল্প বুঝি নাকি? তুমি লিখো, পোষ্ট দাও। তারপর পড়ব।’ কথা না বাড়িয়ে আমি চলে এলাম। গল্পের নাম না নিয়েই! তারপর নিজেই একটা নাম দিয়ে দিলাম! নামটা আমার খুব পছন্দ হয়েছে, ‘অংস নিবাসী’। যার অর্থ ‘ঘাড়ে বসবাসকারী’। জালাল ভাই গল্পের নামটা দেখে কি লেকচার ঝারে আল্লাহ মাবুদই জানে! এই মানুষটা আমাকে অসম্ভব পছন্দ করেন। কেন করেন, জানি না। পছন্দের মানুষের ঝারি খাওয়ার মধ্যে আনন্দ আছে! আমিও তাকে খুব পছন্দ করি। কেন করি, সেটা কিন্তু জানি! তবে বলব না.........................

সুরের মোহে সুর গেথেছি
প্রাণের মোহে প্রাণ,
তাইতো আমি গাইতে থাকি
জোসনা ধরার গান।

(শেষ)
৭৬ টি মন্তব্য
Jalampwd আলম পিডাব্লিউডি০১ ডিসেম্বর ২০১২, ১৬:৪৯
বরাবরের মতই অতি চমৎকার লেখা ডলার ভাই। শুভ কামনা। ভাল থাকবেন। অংস নিবাসী গল্পটা পড়তে চাই।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩০
অনেক ধন্যবাদ আলম ভাই। গল্পটা ব্লগেই আছে। আমার ব্লগে খুঁজলেই পেয়ে যাবেন। অনেক আগে পোষ্ট দেয়া হয়েছিল। আপনার মন্তব্য অনেক উতসাহ যোগালো। ভাল থাকুন ভাই।
Niloy1073 নির্ঝর নাসির০১ ডিসেম্বর ২০১২, ১৬:৫৪
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩১
ধন্যবাদ নাসির ভাই। আশা করি ভাল আছেন।
nomaansarkar নোমান সারকার০১ ডিসেম্বর ২০১২, ১৮:০৬
জিনজির ভাই, ভালো লগল। ভূতের গল্পের প্রতি আমার খুব আগ্রহ ,কিন্তু ভয় পাই বলে লেখার চেষ্টা করি না। আর ভূতের গল্প রাতে পড়ি ,আপনার গল্পটা রাতে পড়ব। ভূতের গল্পের নাম পছন্দ হয়েছে। আর চাঁদের ওজন কত জানালেন না তো ! আর একা একা হাজী সাহেবের বিরিয়ানী খেয়েছেন ,একটু জানালে হত না?

কি ্করুন দশা দেখ আমাদের! তিনি দাওয়াত খান আর এসে কি কি খেয়েছেন হেসে হেসে সেই গল্প করেন। হায় কি খাবার তাও গল্পেই জানতে হল। আর উচু উচু নিশ্বাস ফেলতে হল।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৩
নোমান ভাই, এই বিরিয়ানি খাওয়ার গপ্প অনেক আগের। তারপরও আসবেন জানলে ঠিকই বলতাম। সমস্যা নাই, যে কোন দিন চলে আসেন, হাজি সাহেব এখনও বিরিয়ানি রাধেন এবং বিক্রি করেন। কোন সমস্যা নাই।

গল্পটা অনেক আগেই পোষ্ট করা হয়েছে। ব্লগেই আছে। ধন্যবাদ ভাই। ভাল থাকুন।
sopnerdin45 এনামুল রেজা০১ ডিসেম্বর ২০১২, ১৮:৫৫
জিনজির ভাইজানের সাস্থ্য ভাল হইতেসে দিনদিন।
তার জন্য শুভকামনা।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৫
জিনজির ভাইজানের সাস্থ্য ভাল হইতেসে দিনদিন।........

ধন্যবাদ ভাই। খারাপ বলেন নাই। ঘটনা সত্য। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।
sulary আলভী০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২০:০৩
চাঁদের ওজন জানতে পারলাম না,
ভূতের গল্প পড়া হলো না!

বিরিয়ানি খেয়ে স্বার্থপরের মত লম্বা কাহিনী শুধু পড়িয়ে ছাড়লেন........

এক কথায় চমৎকার প্রিয় জিনজির ভাই,,,,,,,,
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৭
আলভী ভাই, চাঁদের ওজন হল, ২ এর পর বিশটা শূণ্য। তাতে যা হয়, সেটাই তার ওজন। কেজিতে নাকি পাউন্ডে সেটা আমি নিজেই ভুলে গেছি!!!


চমতকার মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ। ভাল থাকুন ভাই।
Maeen মাঈনউদ্দিন মইনুল০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২০:২৭
আপনি গল্প বলার ওস্তাদ সেটা আগের লেখায়ও বুঝেছি। এবার দেখলাম চরিত্র রূপায়নে আপনার ওস্তাদি। এমন ঘোর-লাগা মানুষ আছে, যাদের সকালের কথা বিকালে খেয়াল থাকে না। তাছাড়া বয়স হলে অনেকেই এরকম হয়ে যান।

জালাল ভাইয়ের চরিত্রটি সত্যিই অনেক মজার বৈশিষ্ট্য রয়েছে।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৮
তাছাড়া বয়স হলে অনেকেই এরকম হয়ে যান। ........কথা সত্য।

আপনার সুন্দর মন্তব্যে অনেক উতসাহ পেলাম। ভাল থাকুন ভাই।
chomok001 মোঃ হাসান জাহিদ০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২১:০৭
অসাধারণ !!! এর বেশি কিছু বলার ক্ষমতা আমার নেই । শুভেচ্ছা সতত ।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪০
যেটুকু বলেছেন, তাতেই অনেক কৃতজ্ঞ হয়ে রইলাম। ভাল থাকুন ভাই। শুভকামনা।
chomok001 মোঃ হাসান জাহিদ০২ ডিসেম্বর ২০১২, ২০:২৬
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:২৯
আপনার জন্যও অনেক ভালবাসা এবং ফুল রইল হাসান ভাই।
imran121 দিশেহারা জীবন০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২১:২২


শুভেচ্ছা রইলো প্রিয় জিনজির ভাই...

চালাইয়া যাউক্কা
আছি আপনার লগে
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৫
ওরে বাবা!!! কত সুন্দর ফুল। খুব খুশি হলাম ভাই। শুভকামনা জানবেন।

ইনশাল্লাহ।
imran121 দিশেহারা জীবন০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২৮
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩০
ফুলের ঘ্রাণে বাড়ী ম ম করছে.............
BABLA মোহাম্মদ জমির হায়দার বাবলা ০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২১:৪৪
লেখার টাইপ: বিবিধ,
মনে হলো গল্প,
চরিত্র একেবারে জীবন্ত,
বর্ণনা বেশ মজার।

আপনার জন্য শুভকামনা।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৬
BABLA মোহাম্মদ জমির হায়দার বাবলা ০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২১:৫৫
“বাবলা” গাছের ভ্যাবলা কাঁটা
প্রথমত আমরা নামের পেছনে বেদড়ক শব্দ বসানে হয়েছে।
লেখার উপরে লেখা প্রথম পর্ব
নীচে লেখা শেষ
লেখার টাইপ: বিবিধ,
মনে হলো গল্প,
চরিত্র একেবারে জীবন্ত,
বর্ণনা বেশ মজার।
সবমিলিয়ে ভিন্নস্বাদের লেখা
আপনার জন্য শুভকামনা।
বর্ণনা বেশ মজার।
আপনার জন্য শুভকামনা।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৮
ধন্যবাদ বাবলা ভাই। নামে নামে জমে টানে!!! আমি কি করব বলেন? তবু দুখিত বললাম।

আপনার প্রাণবন্ত মন্তব্য অনেক ভাল লাগল। উতসাহ পেলাম অনেক। শুভকামনা।
lnjesmin লুৎফুন নাহার জেসমিন০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২২:০২
ভূতের গল্প কই ?

তবে এটাও খারাপ লাগে নি ।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৩
ভুতের গল্পটা আগেই পোষ্ট করা হয়েছে। সেটা বেশ কয়েক মাস আগের ঘটনা। সেখানে এই লেখাটাও আছে পূর্ব কথা হিসেবে। নতুন সিরিজ তৈরী করতে চাইছি বলেই এভাবে সেখান থেকে নিয়ে পোষ্ট করলাম। কনসেপ্ট অনেক দিন ধরেই মাথায় ছিল।

আমার কার্নিশে এই মুহুর্তে অনেকগুলো কাক ডাকছে!!! ঘটনা বুঝতেছি না!!! এদের তো ভোর বলা ডাকার কথা, এখন কি মনে করে ডাকছে কে জানে!!!

জালাল ভাই একজন অতি মজার মানুষ। তাকে নিয়েই মূলত এই সিরিজটা। তার সাথে আমার খুব মজার সময় কাটে মাঝে মাঝেই। সেটাই সবার সাথে শেয়ার করার পরিকল্পনা। এই সিরিজটায় তিনিই কেন্দ্রীয় চরিত্র। তাকে নিয়েই ঘটনার আবর্তন। সাইড লাইনে আমিও আছি।

শুভকামনা আপা। ভাল থাকবেন সবাইকে নিয়ে। মা'টাকে আদর দিয়েন।
lnjesmin লুৎফুন নাহার জেসমিন০২ ডিসেম্বর ২০১২, ১৫:৫৫
আপনার মা টা ভালোই আছে । এদেশের খাবারে বেশ মজা পেয়েছে । যাই দেখে তাই নাকি তার কিনতে হবে ।
আপনিও ভালো থাকবেন । আগের মত ব্লগে হৈ চৈ করবেন কবে থেকে ?
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৪
ধন্যবাদ আপা। মা'টা ভাল আছে শুনে অনেক ভাল লাগল। জীবন যেখানে যেমন.......সুখে থাকা এবং ভাল থাকাই শেষ কথা। সেটা হলেই খুশি।

এইতো চলছে............এভাবেই চলবে........থামার তো কোন কারণ নেই। তবে কর্মব্যস্ততার জন্য একটু ধীরে চল ভাবে চলছি। উপরন্তু আগামী বই মেলার জন্য প্রস্তুত হচ্ছি। সেটাও একটা কারণ। পাঠকদের ভাল কিছু দিতে চাই বলেই একটু শ্রম দিচ্ছি। লেখাগুলোকে মেরে ধরে সাইজ করছি বলতে পারেন!!! আগে বুঝিনি, এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি, এটা অনেক কষ্টের একটা কাজ!!! তবে তৃপ্তি আছে। এটা স্বীকার করতেই হবে।

অনেক ভাল থাকুন আপা সবাইকে নিয়ে।
shmongmarma এস এইচ মং মারমা০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২২:১৮
প্রিয় গল্প ভীষণ ভাল লেগেছে ..................শুভেচ্ছা নেবেন।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৪
আপনার মন্তব্যও অনেক ভাল লাগল। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।
Rjamil রশীদ জামীল০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২২:৫৭
জালাল ভাইকে খবর দিতে হবে। শক্ত করে একটা ঝাড়ি দেবার জন্য।
লেখা পোস্ট করে যে লেখক হাওয়া হয়ে যায়, তার জন্য ঝাড়ি ছাড়া উত্তম পুরষ্কার আর কী হতে পারে
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৭
জালাল ভাইকে খবর দিতে হবে। শক্ত করে একটা ঝাড়ি দেবার জন্য।..........

এইবারের জন্য মাফ কইরা দেন গো ভাই। বিরাট জ্বালায় আছি, তাই একটু কম কম। একলা মানুষ, কয় দিকে যামু? তাই কিছু কিছু করে সব দিকেই থাকার চেষ্টা করি। পড়া, কাজ, লেখা-লেখি, বই মেলার জন্য প্রস্তুতি, নতুন বছরের কাজের চাপে........ সব মিলিয়ে নাকাল দশা!!!

আইসা পরছি...........
notunjibon1 রিয়া হাবিব০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২৩:০১
সুরের মোহে সুর গেথেছি
প্রাণের মোহে প্রাণ,
তাইতো আমি গাইতে থাকি
জোসনা ধরার গান।
Rjamil রশীদ জামীল০১ ডিসেম্বর ২০১২, ২৩:০৪
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৯
কথাগুলো সুন্দর, তাই দিয়ে দিয়েছি। আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে।
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৯
রশীদ ভাই কি কিছু বলবেন? চিন্তায় পরে গেলাম তো!!!!
mukto75 মুক্তমন৭৫০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:০৬
জিনজির ভাই, ব্যাপার কি? আপনে কৈ মিয়া?
আপনারে জালাল ভাইজানেরে দিয়া আরেক্ষান ঝাড়ি খাওয়াইতে হইবো।

জাউকগা, পোষ্ট পইড়া ব্যাপক খুশি হইছি যে আপনে একখান ভুতের গল্প পোস্টাইবেন। তবে কবে আইবো সেই পোষ্ট???
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০১
এই তো ভাই, আছি আশে পাশেই। ঝারিরে ডরাই....

গল্পটা অনেক আগেই পোষ্ট করা হয়েছে ব্লগে।

শুভকামনা।
meherajsarmin1 পাহাড়ী০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:১৫
কখনো কখনো কাউকে কাউকে ভাল লাগে । যার পেছনে আসলেই কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না । কিন্তু তখন খুব মজা লাগে নিজের কাছে...
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৪
একদম সত্য কথা বলেছেন পাহাড়ী। হয় এরকম মাঝে মাঝে। কখনও ঠিক হয় আবার কখনও ভুল। ভুল সুদ্ধ নিয়েই মানুষ। মাঝখানে যা হয়, তার নাম অভিজ্ঞতা। যা জীবনকে সমৃদ্ধ করে, মোহময় করে।

শুভকামনা রইল আপনার জন্য।
fardousha ফেরদৌসা০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪১
dollar জিনজির০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৪
moutushi1bashar মৌটুশি বাশার০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৪
ভাই আপনে এক টা উস্তাদ লোক । নইলে এই ঘটনা এত মনযগ দিয়া পড়াইতে পারেন । মানে ঘোরলাগা মানুষের গল্প পড়াইতে আমারেও ঘোর লাগায়া দিছেন আর কি ।
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৭
আপনার মন্তব্যের উত্তরে কি বলব সেটা খুঁজে পাচ্ছি না!!! এত সুন্দর কথায় দিশেহারা হয়ে গেলাম!!! ভাষায় কম পরে গেল..........অনেক ভাল থাকুন আপনি সব সময়। জীবন সুন্দর হোক আপনার।
tmboss172 তৌফিক মাসুদ০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:৩১
অসম্ভব সুন্দর আপনার লেখার ধরন, অনেক কিছু শিখলাম। আমাদের জীবনের অতি সাধারন ব্যপারগুলো নিয়ে যে সুন্দর গল্প লেখা যায় তাবুঝলাম আপনার কাছ থেকে।
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪০
ধন্যবাদ মাসুদ ভাই। আপনার চমতকার মন্তব্যে অনেক উতসাহ পেলাম। যে কোন কাজে উতসাহ একটি বড় ব্যাপার। পথ চলাকে সহজ করে দেয়, পথ যত কঠিনই থাক না কেন!!! ভাল থাকুন আপনি, অনেক ভাল থাকুন।
Shongkhobas সেলিনা ইসলাম০২ ডিসেম্বর ২০১২, ০৩:০৭
অনেকদিন পর আপনার লেখা পড়লাম
জালাল ভাইয়ের মত চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের মানুষ এখন খুবই কম মিলে কারন এমন চরিত্রের হতে হলে দিলখোলা সাদা মনের সুখী মানুষ হতে হয়। কিন্তু আমাদের সমাজে এমন মানুষের এখন বড়ই অভাব! গল্পে শেষের কবিতাটা অসাধারণ লেগেছে। শুভকামনা রইল
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৮
ধন্যবাদ আপা। খুব সুন্দর কিছু কথা বলেছেন। কথাগুলো অনেক সত্যি। জালাল ভাই একজন চমতকার মানুষ। তিনি আশে পাশে থাকলে মনে হয়, জীবন এত সুন্দর এবং সহজ কেন? উত্তরটা সাথে সাথেই আসে। কারণ তিনি জীবনকে সেভাবেই দেখেন, লোভ লালসার উর্দ্ধে উঠে। যেগুলো মানুষের সুন্দর জীবনকে জটিল করে তোলে!!! জালাল ভাইকে একজন আলোকিত মানুষ বলা যায় নিসন্দেহে। তার অন্তর আলোময় বলেই অন্যেরা তার ভিতর আলো খুঁজে পায়। এমন মানুষের প্রিয়পাত্র হতে পারাও এক জীবনের সৌভাগ্য। আমি আসলেই ভাগ্যবান। মাঝে মাঝেই নিজেকে বলি সে কথা।

ভাল থাকবেন আপা। শুভকামনা।
sulary আলভী০২ ডিসেম্বর ২০১২, ১০:৩১
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৩৮
অনেক ধন্যবাদ প্রিয় আলভী ভাই।
kamaluddin কামাল উদ্দিন০২ ডিসেম্বর ২০১২, ১৩:৪২
আপনি যে ভালো লেখিয়ে আজকের আগে আমি এমনভাবে টের পাইনি, অসম্ভব ভালো লেগেছে ভাইজান, এমন গল্প আরো চাই ।
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:২৮
অনেক ধন্যবাদ প্রিয় কামাল ভাই। লেখা যেমনই লেখি, আপনাদের উতসাহে মনটা ভরে যায়। আগে বাড়ার সাহস পাই। ভাল থাকবেন সব সময়।
kamaluddin কামাল উদ্দিন০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ১৮:১১
এমন আরো চাই
dollar জিনজির১১ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৭
সামনে আসছে..........ধন্যবাদ ভাই।
arman786 ‌আরমানউজ্জামান০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৬
জালাল সাহেব প্রথমে যতটা বোকা মনে হয়েছিল তিনি ততটা নন! কেননা তিনি জানতেন অবান্তর প্রশ্নের যুগান্তর উত্তরও অনেক সুন্দর হয় যদি কিনা প্রশ্নটা আপনার মত মানুষকে করা হয়।
বিশাল একটা মন্তব্য লিখে পাষ্ট করলাম
হারাইয়া গেল.......
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৩
মন্তব্য লিখে পোস্ট না করে পাষ্ট করলে তো এমন তো হইবোই

হাহাহা------------

কেমন আছেন আরমান ভাই?
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৫
বিশাল একটা মন্তব্য লিখে পোষ্ট করলাম..............এটা আমার জন্য খুবই কষ্ট সংবাদ ভাই!!! দিলডা ভাইঙ্গা খান খান হইয়া গেল!!! আহারে কিছু সুন্দর কথা থিকা বঞ্চিত হইলাম!!! যাক, পরবর্তীর আশায় রইলাম। এরপর থিকা কপি কইরা তারপর পোষ্ট দিবেন........তাইলে আমার আর কানতে হইব না!!! দুখে........

জালাল ভাই অতি বুদ্ধিমান মানুষ। বিজ্ঞান বলে, জ্ঞানীদের মাথায় নাকি সব সময় এমন সব প্রশ্ন জাগে, যা সাধারনদের জন্য খুবই উদ্ভট!!! আর সেটার জন্যই আজ পৃথিবীতে এত এত কিছুর আবিস্কার হয়েছে!!! আপাত দৃষ্টিতে এই উদ্ভট প্রশ্নগুলোর কারনেই!!! বিষয়টা ভেবে দেখার মত..............

অনেক ভাল থাকবেন প্রিয় আরমান ভাই।

এইবার আসি অভিযোগ কেন্দ্রে.........মিয়া ফুন মারলে ধরেন না ক্যান? এরপর কইলাম ফুনে গুল্লি মাইরা দিমু!!! তহন আমারে কিচু কইবার পারবেন না!! আগেই কইয়া রাখলাম.......হ
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫৮
হাচাই তো!!!!!!!!!!!!! কথাখান আমি খাল করি নাই!!!!! আরমান ভাই, এরপর থিকা পুষ্ট মাইরেন গো ভাই!!!! আর পাষ্ট মাইরেন না!!!!!!! দুখে পরানডা ফাইট্টা যাইতাছে!!!!!

রশীদ ভাই.... সালাম। ভাল আছেন আশা করি।
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৫
আমি ভালা আছি
তোমার মনডা ভালা হইছেনি ?
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২০
জ্বি ভাই, মনডা ভাল হইছে......আরও বেশি ভাল হইব, যদি এইবার আপনার কথাখান রাখেন!!!! আর ফাকি মাইরেন নাই ভাই!!! অপেক্ষায় চুল পাইক্কা যাইতাছে!!! পুলাপান বয়সে যদি চুল সব পাইক্কা যায়, তাইলে কেউ মাইয়া দিবো না আমারে!!!!
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২৮
চুল পাকলে পুবলেম নাই। কলুপ আছে না
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২৯
কথা সত্য!!!! আসলেই তো.........
meermusabberali মীরের লেখা০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০০
আত্তি বাই কিরাম আছো ! কয়ডা কলা গাছ আইজ শাবার করলা !
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৩
কেলা গাছ পাই নাইক্কা!!!! এল্লিগা মনডা বেজায় খারাপ!!!! কয়ডা দিবার পারবেন নি গো ভাইজান? বড় খিদা লাগচে..........প্যাটের মইদ্যে একশ একটা চুহা দৌড় পারে গো!!!!!! জান পুরাই ন্যাকড়া ন্যাকড়া!!!!

অনেক দিন পর আপনাকে পেলাম, ভাল আছেন আশা করি।
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:০৪
আত্তি বাই কিরাম আছো !

চুপপপপপপপপপপপপপপপপপপপপ
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২১
মাগ্গো মা!!!! আমি ডরাইছি!!!! আমি নাই...........
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:২৬
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:৩০
ভাই, ডরাইলাম আমি!!! কান্দেন আপ্নে!!! ঘটনা বুঝলাম না............আমি অথই পানিতে হাবু এবং ডুবু দুটাই খাচ্ছি!!!
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:৩৯
কারু কান্দন দেখলে আমি শইজ্য করবার পারি না
দিলডা লরম ত -----------
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:৪৪
সেটা কি আর না জানি........জানি বলেই তো...........থাক কমু না........মেলা ঘুম আইতাছে!!! চোখের সাটার খোলা রাখা বিরাট কষ্টের কাজ মনে হইতাছে। আইজ ঘুমাই, কাল কথা হবে। ভাল থাকবেন ভাই। খোদা হাফেজ।
Rjamil রশীদ জামীল০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ০১:৪৯
তাইলে জলদি সাটার লাগাও। হত্তাল আরুম্ভু হইবার বিশি দিরি নাই

আল্লাহ হাফিজ জিনজির
সালাম

--------------
dollar জিনজির০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ১৫:৩০
pramanik99 শ‍হীদুল ইসলাম প্রামানিক০৪ ডিসেম্বর ২০১২, ২১:৫৫
‘ডলার, বলতো চাঁদের ওজন কত?’' প্রশ্ন শুনেই আমি মহা টেনশনে পরে গেলাম! চাঁদেরও যে আমাদের মত ওজন আছে তাই জানতাম না! আমার জানামতে ননগ্র্যাভিটি পজিশনে ওজন থাকা না থাকা সমান। আমি নিমতিতা হাসি হেসে বললাম, ‘জালাল ভাই, এই প্রশ্নের উত্তর জানি না!’

খুব ভাল লাগল।
dollar জিনজির১১ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৪৭
ধন্যবাদ ইসলাম ভাই। ভাল থাকবেন সব সময়।
kalpuruss আমি কালপুরুষ০৫ ডিসেম্বর ২০১২, ২২:১৮
আমিও তাকে খুব পছন্দ করি। কেন করি, সেটা কিন্তু জানি! তবে বলব না.........................

আমিও আপনাকে পছন্দ করে ফেলেছি তবে কেন সেটা বলব না......।

অংস নিবাসী... ভূতের গল্প!! ভয় পাই।
তবু পড়তে হবে...
তবে কাল...

এখন যেতে হচ্ছে ।

আপনার লেখা প্রকাশের স্টাইল আসলেই আমাকে আনন্দ দেয়
যে আনন্দ জোড় করে নয় ভিতর থেকে আসে
সত্যিই বেশ মজা...

ইস আমি যদি গল্প লিখতে পারতাম
dollar জিনজির১১ ডিসেম্বর ২০১২, ০০:৫০
আফসোস করার কিছু নাই প্রিয় কালপুরুষ ভাই। আপনি যেরকম সুন্দর কবিতা লিখেন, তা আমাকে তিন রাত এবং তিন দিন যদি কোন গাছের সাথে উল্টো করেও ঝুলিয়ে রাখে কেউ, তবু এরকম একটা কবিতা আমি লিখতে পারবো না!!! কবিতা লেখায় আপনি একটা বিরাট প্রতিভা। সেই প্রতিভাকে শ্রদ্ধা। এগিয়ে চলুন আপন ছন্দে ও সুরে। সাথে আছি সব সময়।

ধন্যবাদ সুন্দর করে কিছু মনের কথা প্রকাশ করার জন্য। ভালবাসার বিপরীতে ভালবাসা। ভাল থাকবেন ভাই সব সময়। দেখা হয়ে যাবে শীঘ্রই। আশায় আছি।